পূজার জন্য নির্বাচন পেছানোর দাবিতে শাহবাগ অবরোধ

সরস্বতী পূজার দিনে ঢাকার দুই সিটি করপোরেশনের ভোট না করার দাবিতে শাহবাগে সড়ক অবরোধ করেছে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের একদল শিক্ষার্থী। এতে বিকেল ৫টায় গুরুত্বপূর্ণ ওই মোড়ে যান চলাচল বন্ধ হয়ে যায়।

পূজার জন্য ভোট পেছানোর আবেদন আদালতে খারিজ হয়ে গেলে মঙ্গলবার বিকেলে ক্যাম্পাস থেকে মিছিল নিয়ে শাহবাগ মোড়ে অবস্থান নেয় ওই শিক্ষার্থীরা। শিক্ষার্থীদের এই অবস্থানে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন হল সংসদের নেতারা রয়েছেন।

জগন্নাথ হল ছাত্র সংসদের ভিপি উৎপল বিশ্বাস সাংবাদিকদের বলেন, শাহবাগের মতো একটি গুরুত্বপূর্ণ জায়গায় সড়ক অবরোধ করে জনদুর্ভোগ তৈরি করা আমরা চাই না। কিন্তু আজকে যখন হাইকোর্টও ৩০ তারিখ নির্বাচনের রায় দিল, তখন আমরা এখানে না এসে পারলাম না। কারণ পূজা ও নির্বাচন একই দিনে হতে পারে না।

জগন্নাথ হল ছাত্র সংসদের জিএস কাজল দাস বলেন, আমরা মনে করি পূজার দিনে নির্বাচন দেওয়ার সিদ্ধান্ত নির্বাচন কমিশনের একটি অসাংবিধানিক সিদ্ধান্ত। এই সিদ্ধান্তকে আমরা ধিক্কার জানাই।

৩০ জানুয়ারি ভোটগ্রহণের দিন রেখে নির্বাচন কমিশন ঢাকা উত্তর ও দক্ষিণ সিটি করপোরেশন নির্বাচনের তফসিল ঘোষণার পরপরই তার বিরোধিতা করেছিল পূজা উদ্‌যাপন পরিষদ ও হিন্দু-বৌদ্ধ-খ্রিষ্টান ঐক্য পরিষদ। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদও ভোটের দিন পরিবর্তনের দাবি জানায়।

কিন্তু এসব আবেদনে ইসি সাড়া না দেওয়ায় এক আইনজীবী রিট আবেদন করেন হাই কোর্ট। মঙ্গলবার আদালত তা খারিজ করে দেওয়ায় ৩০ জানুয়ারিই ভোটগ্রহণের দিন থেকে যায়। এতে ক্ষুব্ধ হয়ে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা নামে বিক্ষোভে।

বিক্ষোভরত শিক্ষার্থীরা ‘৩০ তারিখের নির্বাচন, মানি না-মানব না’, ‘আমার সোনার বাংলায়, বৈষম্যের ঠাঁই নাই’, ‘বঙ্গবন্ধুর বাংলায়, বৈষম্যের ঠাঁই নাই’, ‘পূজার দিনে নির্বাচন, মানি না-মানব না’ স্লোগান দিচ্ছেন।

উত্তর দিন

Please enter your comment!
Please enter your name here